দাগ নাম্বার দিয়ে জমির মালিকের নাম বের করার উপায় ২০২৩

দাগ নাম্বার দিয়ে জমির মালিকের নাম বের করার উপায় ২০২৩

জমি কেনার আগে আপনারা অবশ্যই অনলাইনে জমির মালিকানা যাচাই করে নিন। সেটা আপনারা আপনার হাতে থাকা স্মার্টফোন দিয়ে দাগ নম্বর দিয়ে জমির মালিকানা যাচাই করতে পারবেন। তো আজকের আর্টিকেলে আমি আলোচনা করব জমির মালিকানা বের করার উপায় । জমির খতিয়ান বের করার নিয়ম অর্থাৎ জমির খতিয়ান চেক কিভাবে করবেন ইত্যাদি বিষয়।
Eporcha gov bd website থেকে দাগ নাম্বার দিয়ে জমির মালিকের নাম বের করার উপায় জেনে নিন। আপনাদের সবাইকে জানাই শুভেচ্ছা ও স্বাগতম আশা করি আপনারা সকলেই অনেক ভালো আছেন তো আজকে আমি আপনাদের সাথে খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয় শেয়ার করব আজকের নিবন্ধে আমি আপনাদের দেখাবো আপনারা কিভাবে নিজের মোবাইলের মাধ্যমে অনলাইনে চেক করতে পারবেন জমির প্রকৃত মালিক কে বা তার নাম কি? মোবাইল দিয়ে অনলাইনের মাধ্যমে নিজেই বের করতে পারবেন জমির মালিকের নাম কি? আমি যদি কারো কাছ থেকে কোন জমি কিনতে চান তাহলে কিন্তু আপনারা খুব সহজেই মোবাইলের মাধ্যমে চেক করে নিতে পারবেন যে আসলে কি সেই জমির মালিক সে কিনা? যদি মোবাইলের মাধ্যমে জমি সংক্রান্ত বিষয়গুলো আপনার অনলাইনে জানতে পারেন তাদের বিভিন্ন সরকারি ওফিসে যোগাযোগ করতে হবেনা । এমনকি আপনাকে জমি নিয়ে বিভিন্ন ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে না ।

দাগ নাম্বার দিয়ে জমির মালিকের নাম জানার উপায়

আজকের এই নিবন্ধএ কিন্তু খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয় অবশ্যই আপনারা নিবন্ধটা পরবেন ।নিজের জমি সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয় অনলাইনের মাধ্যমে চেক করতাম তাহলে অবশ্যই নিবন্ধটি শেষ অব্দই দেখবেন জমির দাগ নাম্বার দিয়ে জমির প্রকৃত মালিক কে বা ওঐ আগে সেই মালিক কতটুকু পরিমান জমি পায় এ সমস্ত তথ্য আপনারা মোবাইলের মাধ্যমে পেতে পারেন। খুব গুরুত্বপূর্ণ এই নিবন্ধে আমরা এ সকল তথ্য তুলে ধরব। আশা করি পুরো নিবন্ধটি আপনারা মনোযোগ দিয়ে পড়বেন।

জমির দাগ নম্বর থেকে খতিয়ানটি বের করুন দাগসূচি

জমির প্রকৃত মালিকের নাম জানার জন্য আপনার মোবাইলের যেকোনো একটি ব্রাউজার ব্যবহার করতে হবে। মোবাইলের ব্রাউজার এ গিয়ে সার্চ করতে হবে  land.gov.bd এই ওয়েবসাইটে গিয়ে আপনার মোবাইলটিকে ডেক্সটপ মোডে অন করতে হবে। তারপর যা করতে হবে। অথবা সরাসরি নিচের পদ্ধতি অনুসরন করুন।
ᗒপ্রথমে এই লিংকে ভিজিট করুন।
ᗒতারপর আরএস খতিয়ান নাম্বার এ যেতে হবে।
ᗒএবার বিভাগ বাছাই করুন।
ᗒজেলা বাছাই করুন।
ᗒউপজেলা বাছাই করুন।
ᗒমৌজা বাছাই করুন অথবা সার্চ বক্সে লিখুন।
ᗒতারপর দাগ নং অনুযায়ী সিলেক্ট করে দিন।
ᗒবক্সে দাগ নম্বর টি লিখুন।
ᗒক্যাপচা পুরন করুন।
 ᗒতাহলে ওই জমির সমস্ত খতিয়ান নাম্বার গুলো পেয়ে যাবেন।

খতিয়ান নম্বর দিয়ে মালিকের নাম জানুন

আপনার প্রাপ্ত খতিয়ান নাম্বার গুলো দিয়ে এখন আপনি মালিকের নাম জানতে পারবেন। পূর্বে ইন্টারফেসে যেখানে আপনি দাগ নম্বর দিয়ে খতিয়ান নাম্বার গুলো বের করলেন ওই জায়গায় এখন
 ᗒদাগ নম্বর সিলেক্ট করুন।
 ᗒবক্সে দাগ নাম্বারটি লিখুন।
 ᗒতারপর ক্যাপচা ঘরটি পূরন করুন।
 ᗒএরপর খুঁজুন অপশনটিতে ক্লিক করুন। তাহলে মালিকের নাম পেয়ে যাবেন। এখন ওই জমিতে ওই মালিক কতটুকু পরিমান অংশ পাবে তার পরিমাণ টি দেখাবে।
এভাবে আপনার জমির প্রকৃত মালিকের নাম জানতে পারবেন। আপনি কোন জমি ক্রয় করতে চাইলে সেই জমির প্রকৃত মালিকের নাম জানাটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এ পদ্ধতিতে জমির প্রকৃত মালিকের নাম জানা থাকলে আপনার জমি ক্রয়ের ক্ষেত্রে কোনরকম ডুবলিকেট হওয়ার কথা নেই। 

E-porcha land gov bd মৌজা খতিয়ান খতিয়ান/পর্চা অনুসন্ধান 2023 । দাগ নাম্বার দিয়ে জমির মালিকের নাম বের করার নিয়ম নিয়ম

এজন্য নিম্নোক্ত ধাপ অনুসরণ করুন
ধাপ ১ঃ আপনার ইন্টারনেট সংযোগ সম্বলিত স্মার্টফোনের যেকোন একটি ব্রাউজারে প্রবেশ করুন। Mozilla Firefox অথবা Google Crome ব্যবহার করতে পারেন।
ধাপ ২ঃ ব্রাউজারের সার্চ বক্সে land.gov.bd টাইপ করুন বা সাইট টিতে প্রবেশ করুন। এবার আপনার মোবাইলটিকে Desktop Mode এ অন করুন।
ধাপ ৩ঃ এরপর আরএস খতিয়ান নাম্বার এ যেতে হবে। এবার পর্যায়ক্রমে বিভাগ, জেলা, উপজেলা, মৌজা বাছাই করুন অথবা সার্চ বক্সে লিখুন।
1.তারপর দাগ নং অনুযায়ী সিলেক্ট করে দিন।
2.বক্সে দাগ নম্বর টি লিখুন। ক্যাপচা পুরন করুন।
3.এখন আপনি ওই জমির সমস্ত খতিয়ান নাম্বার গুলো মোবাইলে পেয়ে যাবেন।
4.কোন খতিয়ানের মালিকের নাম জানতে চান তা জেনে রাখুন।
ধাপ ৪ঃ এবার খতিয়ান নম্বর দিয়ে মালিকের নাম জানুন
1.আপনার প্রাপ্ত খতিয়ান নাম্বার গুলো দিয়ে এখন আপনি মালিকের নাম জানতে পারবেন।
2.পূর্বের ইন্টারফেসে এবার আপনি খতিয়ান নাম্বারটি লিখুন।
3.তারপর ক্যাপচা ঘরটি পূরন করুন।
4.এরপর খুঁজুন অপশনটিতে ক্লিক করুন।
তাহলে মালিকের নাম পেয়ে যাবেন। এখন ওই জমিতে ওই মালিক কতটুকু পরিমান অংশ পাবে তার পরিমাণ টি দেখাবে। এভাবে আপনি মোবাইলের সহায়তাই এবং দাগ নম্বর ব্যবহার করে জমির প্রকৃত মালিকের নাম জানতে পারবেন। জমি ক্রয়ের ক্ষেত্রে জমির প্রকৃত মালিকের নাম জানা থাকলে কোনরকম Duplicate হওয়ার চান্স নেই।